মৃ”ত্যুর ৩০ সেকেন্ড আগে কী হয়, মিলল চা’ঞ্চল্যকর তথ্য

একদিন সবাইকে মৃ’ত্যু’র স্বাদ গ্রহণ করতে হবে তা আমরা সবাই জানি। জ’ন্ম নেওয়ার পর থেকেই আমরা একটু একটু করে মৃ’ত্যু’র দিকে অগ্রসর হই। কিন্তু মৃ’ত্যু’র ঠিক আগে বা পরে আমাদের কী হয় তা আমাদের সবারই অজানামৃ’ত্যু’র পর কী হবে তা বলা না গেলেও মৃ”ত্যুর ঠিক আগে কী ঘ’টে তা নাকি এখন বলা সম্ভব। সম্প্রতি কানাডার এক দল গবেষক এমনটাই দাবি করছেন। তাদের গবেষণাপত্র ‘ফ্রনটিয়ার ইন এজিং নিউরোসাইন্স’ এ উঠে এসেছে এমনই সব চা’ঞ্চল্যকর তথ্য।এ গবেষণায় ৮৭ বছরের এক প্রবীণ যিনি এপিলেপসিতে আ’ক্রা’ন্ত ছিলেন তার নি’উরো’লজিক্যাল রেকর্ডিং করা হয়। রেকর্ডিংয়ের সময়ই হা”র্ট অ্যা’টা’কে তার মৃ”ত্যু হয়। মৃ’ত্যু’র ঠিক আগের মু’হূ’র্তে দেখা যায় তার ম’স্তি’স্ক এমনভাবে কাজ করছিল যেন তিনি স্ব’প্ন দেখছিলেন বা স্মৃ’তি মনে করছিলেন। তবে গবেষকদের মধ্যে অন্যতম সদস্য ডা. আজমল জিম্মার জানান, তাদের ওই ব্যক্তির মৃ”ত্যু’র আগের মু’হূ’র্তের নি’উরো’লজিক্যাল রেকর্ডিং সংগ্রহের কোনো পূর্বপরিকল্পনা ছিল না। আ’ক’স্মি’কভাবেই এ তথ্য হাতে পান তারা। মৃ’ত্যু’র আগের মু’হূ’র্তে ম’স্তি’ষ্কের কার্যকারিতা সম্পর্কিত এ গবেষণায় গবেষকরা লক্ষ্য করেছেন, মানুষের মৃ’ত্যু’র ঠিক আগে সারা জীবনের যাবতীয় সঞ্চিত স্মৃ’তির এক ঝলক ভেসে ওঠে চোখের সামনে। তবে কি মৃ’ত্যু’র আগের ৩০ সেকেন্ডে যাদের মানুষ ভালোবাসেন তাদের স্মৃ’তি ফু’টে ওঠে? এ প্রশ্নের জবাবে জি’ম্মার বলেন, এই বিষয়ে নির্দিষ্ট করে কিছু বলা অ’সম্ভব। কারণ হিসেবে তিনি বলেন, প্রতিটি মানুষই স্বতন্ত্র চিন্তার অধিকারী। তাই মৃ’ত্যু’র সময় মানুষ কী ভাবে তা একান্তই ওই ব্যক্তি ও আশপাশের পরিবেশের ওপর নির্ভর করে। তবে বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই মানুষ মৃ’ত্যু’র আগে তার সুখকর আর প্রিয় মানুষদের কথাই মনে করে। দর্শনতত্ত্ব অনুযায়ী যদি আমি মৃত্যুর আগে কোনো স্মৃতি প্রত্যক্ষ করি সেক্ষেত্রে খারাপ স্মৃতির থেকে ভালো স্মৃতিই আগে মনে পড়বে। চি’কি’ৎসা শাস্ত্রে, হৃ’দস্প’ন্দন থামার পর ম’স্তি’স্ক বিকল হলে সেই অবস্থাকে মৃ’ত বলে আখ্যায়িত করা হয়। এ মৃ’ত্যু’র ঠিক আগ মু’হূ’র্তে কী ঘ’টে তা জানার জন্য ২০১৩ সালে আমেরিকার একদল গবেষক ইঁ’দুরের ওপর একটি গবেষণা করেন।

যেখানে গবেষকরা লক্ষ্য করেন, ইঁ’দু’রের মৃ’ত্যু’র আগের ৩০ সেকেন্ডে কিছু অ’স্বা’ভাবিক ব্রেন ওয়েব। এ একই ধরনের অ’স্বা’ভাবিক ব্রে’ন ওয়েভ কানাডার গবেষকরাও মানুষের মধ্যে লক্ষ্য করেছে। তাই মৃ’ত্যু’র ঠিক আগের মু’হূ’র্তে সকল জীবের ক্ষেত্রেই র’হ’স্যজনক কিছু অনুভূতি কাজ করে যা ভাষায় প্রকাশ করা কোনোভাবেই সম্ভব নয় বলেও বিশেষজ্ঞরা মনে করেন।
সূত্র: এই সময়